যুবলীগ সংবাদ :

শোকাবহ আগস্ট মাসব্যাপী বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের কর্মসূচী যুবজাগরণ পাঠাগার ও বিক্রয়কেন্দ্র উদ্বোধন বঙ্গমাতাকে নিয়ে যুবলীগের স্মারকগ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে রুখে দাড়াতে হবে : যুবলীগ চেয়ারম্যান জঙ্গিমুক্ত দেশ গড়তে যুবলীগের শপথ রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস পালিত শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে যুবলীগের সপ্তাহব্যাপী কর্মসূচি স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে যুবলীগের শ্রদ্ধাঞ্জলী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষ্যে যুবলীগের শ্রদ্ধাঞ্জলী বইমেলায় যুবলীগের নান্দনিক আয়োজন যুবলীগ চেয়ারম্যান সম্পাদিত বইয়ের মোড়ক উন্মোচন আওয়ামী যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শেখ ফজলুল হক মনির ৭৭ তম জন্মদিন পালিত। পৌর নির্বাচনী প্রচারণায় যুবলীগের কমিটি গঠন মোমবাতি জ্বালিয়ে শহীদদের প্রতি যুবলীগের শ্রদ্ধা মালয়েশিয়ায় যুবলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার অগ্রযাত্রার মিছিলে তারুণ্যের প্রেরণা আর সাহসের দিন শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস---যুবলীগ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরী
শহীদ শেখ রাসেলের জন্মদিনে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ দিন ব্যাপি কর্মসূচী
2014/10/18 08:30 AM

শহীদ শেখ রাসেলের জন্মদিনে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ দিন ব্যাপি কর্মসূচী
১৮ অক্টবর শহীদ শেখ রাসেলের জন্মদিন। ১৯৬৪ সালের ১৮ অক্টোবর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বেগম ফজিলাতুন নেসা মুজিবের কনিষ্ঠ সন্তান শেখ রাসেল জন্ম গ্রহণ করেন। এ উপলক্ষে আজ ১৮ অক্টবর ২০১৪ শনিবার সকাল ৮ টায় বনানী কবরস্থানে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ এর উদ্যোগে শহীদ শেখ রাসেলের সমাধীতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। সকাল ১১টায় ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ যুবলীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভা, মিলাদ ও দোয়া মাহ্ফিলের আয়োজন করা হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরী। সভা পরিচালনা করেন যুবলীগ সাধারন সম্পাদক মোঃ হারুনুর রশীদ।
           সভাপতির বক্তব্যে-যুবলীগ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরী বলেন ১৯৭৫ এর ১৫ আগষ্ট বাংলাদেশের রাজনীতিতে যে আঘাত আসে, তা আদর্শীক চেতনার রাজনৈতিক ধারাকে ছিন্ন ভিন্ন করেছে। এত নিষ্ঠুর নির্মম বর্বরতায় বাঙালী জাতির হৃদয়ে রক্ত ক্ষরণ হয়েছে। সেদিন ১০ বছরের শিশু রাসেলকেও নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছিল। কেন এই নিষ্ঠুরতা? ইউনিভার্সিটি ল্যাব্রটরী স্কুলের ছাত্র শিশু রাসেল। সে সাইকেল চালাতে পচ্ছন্দ করত। শিশু রাসেল জানত না ঘাতকদের কোন মায়া-মমতা নাই।  বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বেগম ফজিলাতুন নেসা মুজিবকে স্ব-পরিবারের হত্যার পর সর্বশেষ প্রাণ দিতে হয়েছিল শিশু রাসেলকে। বাংলাদেশের প্রত্যান্ত অঞ্চলে শিশু রাসেল একটি নিস্পাপ মেধাবী নাম। ইতিহাস বলে, যারা এই হত্যাকান্ড চালিয়েছিল তারা পরাজিত হয়েছে। ১৫ আগষ্ট যে কারণে বঙ্গবন্ধুকে স্ব-পরিবারে হত্যা করা হয়েছিল, সে কারণ বাস্তবায়নে এখনো ষড়যন্ত্র চলছে। বর্তমান মন্ত্রী পরিষদের মধ্যেও এই  ষড়যন্ত্রকারীরা রয়েছে। লতীফ সিদ্দিকীকে দিয়ে পুজা উৎসবের সময় কেন এধরণের বক্তব্য দেয়া হলো? দেশে হিন্দু-মুসলিম রায়ট  সৃষ্টি করার জন্য ষড়যন্ত্রকারীরা মন্ত্রী পরিষদ ও এমপি পরিষদ-এর সদস্যদের ব্যবহার করতে পারে। এ জন্য যুবলীগ নেতা-কর্মীদের সচেতন থাকতে হবে। যুবলীগ চেয়ারম্যান বলেন-আমরা রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানাই তিনি সঠিক সময়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। একে খন্দকারের বিতর্কিত গ্রন্থের ব্যাপারে  অনেকেই গ্রন্থটিকে বাজেয়াপ্ত করার পরামর্শ দিলেও নেত্রী তা করেন নি তিনি নিরবে  ধর্য্য ধারণ করেছেন। কিন্তু ধর্মীয় ব্যাপারে কোন ছাড় না দিয়ে লতীফ সিদ্দিকীকে মন্ত্রী পরিষদ থেকে অব্যাহতি দিয়ে সমন জারী করেছেন। পিয়াস করিম এর লাশ শহীদ মিনারে আনা প্রসঙ্গে তিনি বলেন- পিয়াস করিম একাধিক বার বিভিন্ন টকশোতে স্বাধীনতা তথা মুক্তিযুদ্ধের বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছেন। তিনি শহীদ মিনারে বিশ্বাসী নন। পিয়াস করিম ছিলেন শান্তি কমিটির চেয়ারম্যান এড. আব্দুল করিমের ছেলে। ধীরেন্দ্র নাথ দত্ত ছিলেন রাষ্ট্র ভাষা বাংলা চাই আন্দোলনের প্রথম প্রবক্তা। সে কারণে এড. আব্দুল করিম ধীরেন্দ্র নাথ দত্তকে ২ মাস ক্যান্টনমেন্টে বন্দী অবস্থায় আটকে রেখে প্রথমে দুই হাত ভেঙ্গে পরে দুই পা ভেঙ্গে নির্যাতন করে হত্যা করেছিল। যুবলীগ চেয়ারম্যান নেতা-কর্মীদের ষড়যন্ত্রকারীদের প্রতিহত করতে সর্বদা প্রস্তুত থাকতে বলেন।
    যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক মোঃ হারুনুর রশীদ বলেন ১৯৬৪ সালের ১৮ অক্টোবর জন্মে ছিলেন বাঙ্গালী জাতির পিতা শতাব্দীর মহানায়ক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ পুত্র শিশু শেখ রাসেল। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগষ্ট সেনাবাহিনীর আদর্শচ্যুত একদল কুলাঙ্গার ও স্বাধীনতা বিরোধী চক্র বঙ্গবন্ধুকে স্ব-পরিবারে হত্যার সময় শিশু রাসেলকেও রেহাই দেয়া হয় নি। তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পলাতক খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে তাদের ফাঁসির রায় দ্রুত কার্যকর করার জোর দাবী জানান।
এসময় আরো আরো বক্তব্য রাখেন- যুবলীগ প্রেসিডিয়াম সদস্য শহীদ সেরনিয়াবাত, মুজিবুর রহমান চৌধুরী, মোঃ ফারুক হোসেন, আতাউর রহমান আতা, মাহবুবুর রহমান হিরন,নিখিল গুহু, মোতাহার হোসেন সাজু,এনায়েত কবির চঞ্চল, এবিএম আমজাদ হোসেন, আনোয়ারুল ইসলাম,জাকির খান, যুগ্ম-সম্পাক বাবু সুব্রত পাল, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু আহমেদ নাসিম পাভেল, মুহাম্মদ বদিউল আলম, ফারুক হাসান তুহিন, এমরান হোসেন খান, আসাদুল হক আসাদ, দপ্তর সম্পাদক কাজী আনিসুর রহমান, যুবলীগ ঢাকা মহানগর উত্তর সভাপতি মাইনুল হোসেন খাঁন নিখিল, যুবলীগ ঢাকা মহানগর দক্ষিন সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক রেজাউল করিম রেজা প্রমুখ।     
এছাড়া উপস্থিত ছিলেন সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য মিজানুল ইসলাম মিজু, সাজ্জাদ হায়দার লিটন,আওলাদ হোসেন রুহুল, শাহজালাল, মাওলানা খলিলুর রহমান, উপ-সম্পাদক শেখ বোরহান উদ্দিন বাবু, ফয়েজ আহমেদ খোকা, শ্যামল কুমার রায়, হাসিবুর রহমান বাচ্চু, জাকিয়া সুলতানা শেফালি, নাসরিন সুলতানা ঝরা, জেসমিন শামীমা নিঝুম, সহ-সম্পাদক রবিউল আলম, মোয়াজ্জেম হোসেন প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার তথ্যকণিকা

পরিচিতি
ভাষণ
বার্তা

চেয়ারম্যান ডেস্ক

পরিচিতি
ভাষণ
বার্তা

সাধারণ সম্পাদক ডেস্ক

পরিচিতি
ভাষণ
বার্তা

যুবলীগ প্রকাশনা