যুবলীগ সংবাদ :

যুবজাগরণ পাঠাগার ও বিক্রয়কেন্দ্র উদ্বোধন বঙ্গমাতাকে নিয়ে যুবলীগের স্মারকগ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে রুখে দাড়াতে হবে : যুবলীগ চেয়ারম্যান জঙ্গিমুক্ত দেশ গড়তে যুবলীগের শপথ রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস পালিত শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে যুবলীগের সপ্তাহব্যাপী কর্মসূচি স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে যুবলীগের শ্রদ্ধাঞ্জলী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষ্যে যুবলীগের শ্রদ্ধাঞ্জলী বইমেলায় যুবলীগের নান্দনিক আয়োজন যুবলীগ চেয়ারম্যান সম্পাদিত বইয়ের মোড়ক উন্মোচন আওয়ামী যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শেখ ফজলুল হক মনির ৭৭ তম জন্মদিন পালিত। পৌর নির্বাচনী প্রচারণায় যুবলীগের কমিটি গঠন মোমবাতি জ্বালিয়ে শহীদদের প্রতি যুবলীগের শ্রদ্ধা মালয়েশিয়ায় যুবলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার অগ্রযাত্রার মিছিলে তারুণ্যের প্রেরণা আর সাহসের দিন শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস---যুবলীগ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরী
বঙ্গবন্ধুকে বি এন পি যেদিন জাতির পিতা মানবে, দেশের অনেক সমস্যার সমাধান সেদিন হয়ে যাবে।
2014/08/10 10:21 AM

         ..........যুবলীগ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরী

যুবলীগ চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী বলেছেন বঙ্গবন্ধুকে বিএনপি যেদিন জাতির পিতা মানবে, দেশের অনেক সমস্যার সমাধান সেদিন হয়ে যাবে। আজ ১০ আগষ্ট রবিবার সকাল ১১ টায় ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ যুবলীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের  কেন্দ্রীয় কমিটির সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেছেন।  আগামী ১২ আগষ্ট যুলীগের শোক র‌্যালী সফল করার লক্ষে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। যুবলীগ সাধারন সম্পাদক মোঃ হারুনুর রশিদ সভা পরিচালনা করেন।

সভাপতির বক্তব্যে যুবলীগ চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী শুরুতে শোকের মাসে নিহতদের রুহের মাগফেরাত কামনা করেন । তিনি বলেন আগষ্টমাস জাতির পিতা হত্যার মাস, এ কারনেই বিএনপি ঈদের পর আগষ্ট মাসে  আন্দলনের ডাক দিয়েছে। তিনি আরো বলেন বঙ্গবন্ধুর শাহাদত দিবসে নকল জন্মদিন পালন করা এ জাতিকে আপমান শুধুনয়, স্বাধিনতার প্রতি কটাক্ষ করার শামিল। বঙ্গবন্ধুকে বিএনপি যেদিন জাতির পিতা মানবে, দেশের অনেক সমস্যার সমাধান সেদিন হয়ে যাবে। গুড হওয়া যায় কিন্তু গ্রেট হওয়া মুশকিল, আসুন আমরা গ্রেট হওয়ার স্বপন দেখি। বেগম জিয়ার উদ্যেশ্যে তিনি বলেন ,আপনি তিনবারের প্রধানমন্ত্রী, কেকটা একদিন পরে কাটেন, একদিন পরে কেক কাটলে হায়াত এক দিন কমবে না ,বরং সবার প্রশংসা আরো বেড়ে যাবে। ১৫ আগষ্ট বঙ্গবন্ধুকে নয়, একটি জাতির স্বপন, ভবিষ্যৎ চলার পথকেই হত্যা করা হয়েছিল। মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরী বলেন মনেরাখতে হবে  রাজনীতি জেদ, হিংসা বা হানাহানির বিষয় নয়। ধৈর্য্য ,আদর্শ, এবং জনকল্যান কামিতা রাজনীতিতে অনেক বেশি ইতিবাচক। তিনি বলেন প্রতিপক্ষকে আপন করতে পারা রাজনীতির সেরা কৌশল। আন্দলন সংগঠন ,সংগঠন আন্দলন অর্থাৎ কর্মসুচী ছাড়া সংগঠন পাড়ার ক্লাবের চাইতেও দূর্বল হয়। বিএনপির কর্মসূচী শুধু কার্যালয়ের মধ্যে বসে প্রেস ব্রিফিং করা  আর লন্ডনে পালিয়ে থেকে হুঙ্কার দেয়া, এভাবে হুংকার  দিলেই আন্দলন হয়না। তিনি দলিয় নেতা কর্মীদের উদ্যেশ্যে বলেন বিএনপির ষড়যন্ত্রকে প্রতিহত করতে যুবলীগ কর্মসূচীর মাধ্যমে মাসব্যাপি মাঠে থাকবে। শোককে শক্তিতে পরিনত করতে হবে এ কথাটি শুধু মুখে বলে কোন লাভ হবেনা, কর্মসুচীর মাধ্যমে রাজপথে বিএনপির ষড়যন্ত্রকে  মোকাবেলা করতে হবে।

  • সাধারন সম্পাদক মোঃ হারুনুর রশিদ তার বক্তব্যে চেয়ারম্যান ঘোষিত সমস্ত কর্মসূচী সমূহে ব্যপক উপস্থিতির মাধ্যমে সকল কর্মসূচী বাস্তবায়নে নেতাকর্মদের আহবান জানান। তিনি বলেন বিএনপিকে বুঝিয়ে দিতে হবে যুবলীগের নেতা কর্মীরা যুবলীগ চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে সর্বদা রাজপথে প্রস্তুত আছে। আরো বক্তব্য রাখেন প্রেসিডিয়াম সদস্য শহীদ সেরনিয়াবাত, মজিবুর রহমান চৌধুরী, শিরাজুল ইসলাম মোল্লা, মোঃফারুক হোসেন, মাহাবুবুর রহমান হিরন, আব্দুস সাত্তার মাসুদ, মোঃ আনোয়ারুল ইসলাম, অধ্যাপক আমজাদ হোসেন , এনায়েত কবির চঞ্চল, জাকির খান , শেখ আতিয়ার রহমান দিপু, যুগ্ম সম্পাদক - মহি উদ্দিন আহাম্মেদ মহি, মঞ্জুর আলম শাহীন , বাবু শুভ্রত পাল,  নাসরিন জাহান চৌধুরী শেফালী,সাংগঠনিক সম্পাদক-সালাউদ্দিন মাহমুদ জাহিদ,আমির হোসেন গাজী, ফজলুল হক আতিক, মোঃ এমরান হোসেন খান, ফারুক হাসান তুহিন, আসাদুল হক আসাদ, দপ্তর সম্পাদক কাজী আনিসুর রহমান, সম্পাদক মন্ডলির সদস্য -শহীদুল হক খান রাসেল , ড.সাজ্জাদ হায়দর লিটন, মোঃ শফিকুল ইসলাম , মিজানুল ইসলাম মিজু, বা্বুল আক্তার বাবলা, কায়সার আহাম্মেদ, কার্য নির্বাহী সদস্য - শেখ ফজলে ফাহীম , শেখ ফজলে নাঈম, উপ-সম্পাদক  শেখ বোরহান উদ্দিন বাবু, ইকবাল মাহমুদ বাবলু , ফয়েজ আহাম্মেদ খোকা, শ্যামল কুমার রায়, মোঃ রফিকুল ইসলাম চৌধুরী, জসিম মাতুব্বর, নিজাম উদ্দিন পারভেজ, রাশেদুল ইসলাম রুমেল, মোঃ হেলাল উদ্দিন, মীর শরিফ হাসান লেনীন, জাকিয়া সুলতানা শেফালী, নাসরিন সুলতানা ঝরা, সহ সম্পাদক - রবিউল ইসলাম, মোয়াজ্জেম হোসেন, মহিউদ্দিন আহমেদ বাচ্চু, কাজী সরোয়ার হোসেন, কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা-  তোবারক হোসেন বাগমার, মোঃ আলী মিন্টু, আবুল হোসেন মজুমদার, আবুল কালাম আজাদ প্রমুখ।

 

বর্তা প্রেরক

কাজী আরিসুর রহমান

দপ্তর সম্পাদক

বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ

রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার তথ্যকণিকা

পরিচিতি
ভাষণ
বার্তা

চেয়ারম্যান ডেস্ক

পরিচিতি
ভাষণ
বার্তা

সাধারণ সম্পাদক ডেস্ক

পরিচিতি
ভাষণ
বার্তা

যুবলীগ প্রকাশনা