যুবলীগ সংবাদ :

যুবজাগরণ পাঠাগার ও বিক্রয়কেন্দ্র উদ্বোধন বঙ্গমাতাকে নিয়ে যুবলীগের স্মারকগ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে রুখে দাড়াতে হবে : যুবলীগ চেয়ারম্যান জঙ্গিমুক্ত দেশ গড়তে যুবলীগের শপথ রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস পালিত শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে যুবলীগের সপ্তাহব্যাপী কর্মসূচি স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে যুবলীগের শ্রদ্ধাঞ্জলী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষ্যে যুবলীগের শ্রদ্ধাঞ্জলী বইমেলায় যুবলীগের নান্দনিক আয়োজন যুবলীগ চেয়ারম্যান সম্পাদিত বইয়ের মোড়ক উন্মোচন আওয়ামী যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শেখ ফজলুল হক মনির ৭৭ তম জন্মদিন পালিত। পৌর নির্বাচনী প্রচারণায় যুবলীগের কমিটি গঠন মোমবাতি জ্বালিয়ে শহীদদের প্রতি যুবলীগের শ্রদ্ধা মালয়েশিয়ায় যুবলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার অগ্রযাত্রার মিছিলে তারুণ্যের প্রেরণা আর সাহসের দিন শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস---যুবলীগ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরী
চার সিটি নির্বাচনে জয়ী হয়েছে জনগণের ক্ষমতায়ন : ওমর ফারুক চৌধুরী
03/03/2014 12:53 AM

চার সিটি নির্বাচনে জয়ী হয়েছে জনগণের ক্ষমতায়ন : ওমর ফারুক চৌধুরী


বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরী বলেছেন, চার সিটি করপোরেশন নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে জনগণের ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। জয় হয়েছে ‘জনগণের ক্ষমতায়নের’। 

যুবলীগ চেয়ারম্যান বলেন, নির্বাচন এখন বাঙালির এক নতুন উৎসব হিসেবে আর্বিভূত হয়েছে। জনগণের এই অধিকারের উৎসবের প্রবর্তক রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, স্বৈরাচারী জিয়ার আমলে ভোট মানে ছিলো দশটা হুন্ডা, বিশটা গুন্ডা, নির্বাচন ঠাণ্ডা। আর বেগম জিয়ার আমলে নির্বাচন মানে হলো, দেড় কোটি ভুয়া ভোটার। রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার সময়ে নির্বাচন মানে হলো ‘আমার ভোট আমি দেবো, যাকে খুশী তাকে দেবো।’

যুবলীগ চেয়ারম্যান বলেন ১৯৮১ সাল থেকে জনগনের ক্ষমতায়ন এবং জনগণের ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য, রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা যে দীর্ঘ সংগ্রাম করেছেন, চারটি সিটি করপোরেশন নির্বাচন সেই আন্দোলনেরই বিজয় বার্তা বহন করেছে।

পরিচ্ছন্ন রাজনীতিবিদ ওমর ফারুক চৌধুরী বলেন রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা জনগণের ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য স্বাধীন স্বাতন্ত্র্য ও শক্তিশালী নির্বাচন কমিশন গঠন, ছবিসহ ভোটার তালিকা, স্বচ্ছ ব্যালট বাক্স প্রতিষ্ঠার জন্য আন্দোলন করেন। তার আন্দোলনের কারণে, ভোট এখন আতংকের পরিবর্তে এক উৎসবের নাম।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের নির্বাচন ব্যবস্থা যে এখন দেশে এবং আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত এবং প্রশংসিত তার প্রমাণ এই চার সিটি নির্বাচন। এই নির্বাচনে বিএনপির নেতৃত্বাধীন ১৮ দলের অংশগ্রহণের মাধ্যমে প্রমাণিত হলো, তারাও রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার ‘জনগণের ক্ষমতায়ন’ দর্শনে আস্থাশীল। তিনি বলেন, এর মাধ্যমে প্রমাণিত হলো, রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা এখন কেবল আওয়ামী লীগ সভাপতি নন, গোটাজাতির অভিভাবক। রাজনৈতিক কারণে বিরোধীদল রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার সমালোচনা করলেও, তারাও জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠার প্রশ্নে রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনাকে অভিভাবক হিসেবে স্বীকার করেন।

যুবলীগ চেয়ারম্যান তার বিবৃতিতে বলেন ‘জনগণের ক্ষমতায়ন’ এখন শুধু বাংলাদেশের শান্তির দর্শন নয়, এটি জাতিসংঘে ১৯৩ দেশের সর্বসম্মত ও রাজনৈতিক অধিকার প্রতিষ্ঠিত হতে পারে-চার সিটি নির্বাচন তার প্রকৃষ্ট উদাহরন।

বিবৃতিতে তিনি আশা প্রকাশ করেন, এই উৎসবমুখর ধারায় জনগণের স্বতস্ফূর্ত অংশগ্রহণের মাধ্যমেই, জনগণের ইচ্ছায় প্রতিফলন ঘটবে আগামী সব নির্বাচনেও। জয় হবে জনগণের, পরাজয় হবে অপশক্তির।

রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার তথ্যকণিকা

পরিচিতি
ভাষণ
বার্তা

চেয়ারম্যান ডেস্ক

পরিচিতি
ভাষণ
বার্তা

সাধারণ সম্পাদক ডেস্ক

পরিচিতি
ভাষণ
বার্তা

যুবলীগ প্রকাশনা