যুবলীগ সংবাদ :

যুবজাগরণ পাঠাগার ও বিক্রয়কেন্দ্র উদ্বোধন বঙ্গমাতাকে নিয়ে যুবলীগের স্মারকগ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে রুখে দাড়াতে হবে : যুবলীগ চেয়ারম্যান জঙ্গিমুক্ত দেশ গড়তে যুবলীগের শপথ রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস পালিত শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে যুবলীগের সপ্তাহব্যাপী কর্মসূচি স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে যুবলীগের শ্রদ্ধাঞ্জলী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষ্যে যুবলীগের শ্রদ্ধাঞ্জলী বইমেলায় যুবলীগের নান্দনিক আয়োজন যুবলীগ চেয়ারম্যান সম্পাদিত বইয়ের মোড়ক উন্মোচন আওয়ামী যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শেখ ফজলুল হক মনির ৭৭ তম জন্মদিন পালিত। পৌর নির্বাচনী প্রচারণায় যুবলীগের কমিটি গঠন মোমবাতি জ্বালিয়ে শহীদদের প্রতি যুবলীগের শ্রদ্ধা মালয়েশিয়ায় যুবলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার অগ্রযাত্রার মিছিলে তারুণ্যের প্রেরণা আর সাহসের দিন শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস---যুবলীগ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরী
আনন্দ ঘন পরিবেশে টাঙ্গাইল জেলা যুবলীগ এর কাউন্সিল অধিবেশন সম্পন্ন
2014/06/27 01:29 PM

আনন্দ ঘন পরিবেশে টাঙ্গাইল জেলা যুবলীগ এর কাউন্সিল অধিবেশন সম্পন্ন হয়েছে। আজ ২৭ জুন শুক্রবার সকাল ১১:০০ টায় মাওনা ভাসানী মিলনায়তনে এই কাউন্সিল অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠান উদ্ভধন করেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ওমর ফারম্নক চৌধুরী। প্রথম অধিবেশনে টাঙ্গাইল জেলা যুবলীগ এর ভার প্রাপ্ত সভাপতি রেজাউল আলম চঞ্চলের সভাপত্বিত্তে প্রধান অথিতি ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ এর প্রেসিডিয়াম সদস্য বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সাবেক চেয়ারম্যান শেখ ফজলুল করিম সেলিম এম পি, প্রধান বক্তা ছিলেন যুবলীগ সাধারন সম্পাদক মোঃ হারম্ননুর রশিদ। বক্তিতা করেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক মুহাম্মদ বদিউল আলম, যুগ্ন সম্পাদক বাবু শুভ্রত পাল, টাঙ্গাইল শহরের মেয়র সাইদুর রহমান খান মুক্তি, তারানা হালিম এম পি, আমিনুর রহমান খান রানা এম পি, ফজলুর রহমান খান রানা এম পি, শাজাহান জয় এম পি, ফজলুর রহমান ফারম্নক জেলা প্রশাসক ও জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক, জেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এডভোকেট মিনু প্রমুখ। এছাড়াও শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন শেখ ফজলুল করিম সেলিমের দুই পুত্র ও কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য শেখ ফজলে ফাহিম, ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নাঈম প্রমুখ। উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম জাহিদ, আসাদুল হক আসাদ দপ্তর সম্পাদক কাজী আনিসুর রহমান, সম্পাদক মন্ডলী বাবুল আক্তার বাবলা, মিজানুল ইসলাম মিজু উপ সম্পাদক শেখ বোরহান উদ্দিন বাবু, ইকবাল মাহমুদ বাবলু, শ্যামল কুমার রায় প্রমুখ নেতৃবৃন্দ। ২য় অধিবেশনে সর্বসম্মতিক্রমে সভাপতি নির্বাচিত হয় রেজাউল আলম চঞ্চল ও সাধারন সম্পাদক  নির্বাচিত হয় ফারম্নক হোসেন মানিক।

 

আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম বলেছেন, আওয়ামী লীগ যদি বেচে থাকে জিয়াউর রহমান হত্যাকান্ডসহ দেশে সব ধরনের হত্যাকান্ডের বিচার করবে। তিনি বলেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার উদ্দেশ্যে বলেন, এর আগে দুই দুই বার ক্ষমতায় ছিলেন। ক্ষমতায় থাকতে কেন জিয়াউর রহমান হত্যাকান্ডের বিচার করেননি। আর এখন  বলছেন এরশাদ সাহেব জিয়াউর রহমানের খুনি, তুমিও তো দুইবারের প্রধানমন্ত্রী ছিলেন, তাহলে বিচার করেননি কেন, তাহলে তুমিও সমান অপরাধী বলেও উলেস্নখ করেন তিনি।ওনি যদি খুনিই হয়ে থাকনে, তাহলে এরশাদের কাছ থেকে নেয়া বাড়ি ফেরত দেন বলেন তিনি।ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা ¯^iv‡Ri সঙ্গে খালেদা জিয়ার সাক্ষাৎ করাকে কটাক্ষ করে তিনি আরো বলেন, আজকে দেখেন তার অবস্থা কোথায় নেমে গেছে।মোদির সঙ্গে দেখার করার দাওয়াত এবং সৌজন্য সাক্ষাৎ করার জন্য তিনি বাংলাদেশে এসেছেন।আর এখন কি না তিনি (খালেদা জিয়া) ধরেছেন, তার সঙ্গে ৫মিনিট দেখা করাইয়া দেন। আর ভারত বলেছে এর আগে তুমি আমার রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করো নাই। তাই তারা তাকে ৫মিনিট সময় দিয়েছেন বলেও দাবি করেন এই নেতা।আর দেখেন রওশন এরশাদের সঙ্গে তিনি (সুষমা)দেখা করেছেন বাসায় বসে দীর্ঘ সময় ধরে। আর তাকে সময় দিয়েছে সোনারগাঁ হোটেলে ৫মিনিট। দেখেন আজকে খালেদা জিয়া কোথায় নেমে গেছেন বলেন তিনি।তিনি আরো বলেন, ভারত ভোলে নাই তুমি দশ ট্রাক অস্ত্র উলফাকে দিয়ে, ভারতকে ধ্বংস করার ষড়যন্ত্র করেছো। তারা ভোলে নাই উলফা-ত্রিপুরা বিচ্ছিন্নতাবাদীদের দিয়ে সোনারগাঁ হোটেলে পারভাজ মোশাররফের সঙ্গে বৈঠক করে ভারতকে ধ্বংস করার ষড়যন্ত্র করেছিলেন।

 

উদ্ভধনি বক্তব্যে যুবলীগ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ওমর ফারম্নক চৌধুরী বলেন রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার ‘জনগণের ক্ষমতায়ন’ দর্শনের বাস্তবায়নের এক মহাসন্ধিক্ষনে আজ বাংলাদেশ। উন্নয়ন ও গণতন্ত্রের সম্মিলিত পথযাত্রায় বাংলাদেশ এখন অর্থনৈতিক মুক্তির দ্বারপ্রানেত্ম। তিনি বলেন মধ্য আয়ের দেশের সীমা স্পর্শ করে বাংলাদেশের দৃষ্টি এখন উন্নত বিশ্বের মহাসড়কে। ঠিক এরকম একটি সময়ে বাংলাদেশে দুর্নীতির বরপুত্র তারেক জিয়া মিথ্যাচারে নতুন বিশ্বরেকর্ড স্থাপন করেছে। দেশে ১৬ কোটি মানুষের মধ্যে ১০ কোটি যুবক ও তরম্নণ। এই যুবক ও তরম্নণরাই পারে বাংলাদেশকে অর্থনৈতিক মুক্তি দিয়ে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠিত করতে।, কিন্তু এই অর্থনৈতিক মুক্তিকে ঠেকানোর জন্য খালেদা জিয়া-তারেক রহমান ও নিজামীরা আবার ষড়যন্ত্র শুরম্নকরেছে। মিথ্যায় নতুন বিশ্বরের্কড করা তারেক জিয়ার সাম্প্রতিক অসংলগ্ন কথা বার্তার মূল উদ্দেশ্য হলো জনগনকে বিভ্রানত্মকরে উন্নয়ণের পথে বাঁধা সৃষ্টি। আর সন্ত্রাসের গডমাদার খালেদা জিয়া আবার নতুন করে নৈরাজ্য সৃষ্টির হুমকি দিচ্ছে। কারণ, আত্মনির্ভর,সুখী সমৃদ্ধ বাংলাদেশ খালেদা জিয়ার পছন্দ নয়। একই সাথে যুদ্ধাপরাধীদের রায় কার্যকর ঠেকাতে সন্ত্রাসের নীলনক্সা করেছে জামাত-শিবির চক্র। এই তিনটি অপরাজনীতির ধারা আসলে একই সূত্রে গাঁথা। এর মূল লক্ষ হলো, জনগণের বিজয়কে নস্যাৎ করা। অর্থনৈতিক মুক্তিকে বাঁধা গ্রস্থ করা। কিন্তু রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার ‘জনগণের ক্ষমতায়ন’ দর্শণে আজ জাগরিত বাংলাদেশের যুব সমাজ। এসব ষড়যন্ত্রের জবাব দিতে হবে ঐক্যবদ্ধ জনজাগরণের মাধ্যমে। সেজন্য যুব সমাজকে রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার পতাকাতলে ঐক্যবদ্ধ ভাবে সচেতন থাকতে হবে। তাহলেই আমরা আমাদের উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রার ধারা অব্যাহত রাখতে পারবো।

রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার তথ্যকণিকা

পরিচিতি
ভাষণ
বার্তা

চেয়ারম্যান ডেস্ক

পরিচিতি
ভাষণ
বার্তা

সাধারণ সম্পাদক ডেস্ক

পরিচিতি
ভাষণ
বার্তা

যুবলীগ প্রকাশনা