যুবলীগ সংবাদ :

যুবজাগরণ পাঠাগার ও বিক্রয়কেন্দ্র উদ্বোধন বঙ্গমাতাকে নিয়ে যুবলীগের স্মারকগ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে রুখে দাড়াতে হবে : যুবলীগ চেয়ারম্যান জঙ্গিমুক্ত দেশ গড়তে যুবলীগের শপথ রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস পালিত শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে যুবলীগের সপ্তাহব্যাপী কর্মসূচি স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে যুবলীগের শ্রদ্ধাঞ্জলী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষ্যে যুবলীগের শ্রদ্ধাঞ্জলী বইমেলায় যুবলীগের নান্দনিক আয়োজন যুবলীগ চেয়ারম্যান সম্পাদিত বইয়ের মোড়ক উন্মোচন আওয়ামী যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শেখ ফজলুল হক মনির ৭৭ তম জন্মদিন পালিত। পৌর নির্বাচনী প্রচারণায় যুবলীগের কমিটি গঠন মোমবাতি জ্বালিয়ে শহীদদের প্রতি যুবলীগের শ্রদ্ধা মালয়েশিয়ায় যুবলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার অগ্রযাত্রার মিছিলে তারুণ্যের প্রেরণা আর সাহসের দিন শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস---যুবলীগ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরী
রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার দর্শন’ গ্রন্থে সাধারণ সম্পাদকের বক্তব্য
03/03/2014 1:21 AM

২৮ সেপ্টেম্বর ২০১২ 

বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আওয়ামী লীগের সভাপতি, রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার ৬৫তম জন্মবার্ষিকীতে ঐতিহ্যবাহী এবং সংগ্রামী যুবপ্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের পক্ষ থেকে তাঁকে জানাই প্রাণঢালা অভিনন্দন এবং আন্তরিক শুভেচ্ছা।

বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার পৃষ্ঠপোষকতা ও নির্দেশে পরিচালিত দেশের সর্ববৃহৎ যুব সংগঠন। যুবলীগ একই সঙ্গে সংগ্রাম এবং মেধাকে লালন করে থাকে। মেধার চর্চা হিসেবে আমরা রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার রাজনৈতিক ও শান্তির দর্শন নিয়ে গবেষণা করি এবং তা গণমাধ্যমে প্রচার করি। যুবলীগের সংগ্রামী চেয়ারম্যান, মেধাবী ও সৃজনশীল যুব ব্যক্তিত্ব মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরীর নেতৃত্বে বিশেষজ্ঞ ব্যক্তিবর্গের সমন্বয়ে যুবলীগের রয়েছে একটি সমৃদ্ধ গবেষক টিম। এই টিমের গবেষণায়, গণতন্ত্রের মানসকন্যা ও বাংলার অবিসংবাদিত নেতা রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার ৩২ বছরের রাজনীতির গৌরবময় অধ্যায়, দুর্লভ ছবিসংবলিত ‘শেখ হাসিনার দর্শন’ শীর্ষক এই মূল্যবান এবং অন্যান্য সাধারণ গ্রন্থটি বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ প্রকাশ করেছে মাননীয় নেত্রীর ৬৫তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে।

শেখ হাসিনার দর্শন নিয়ে গবেষণা এবং তা প্রচার করা কেন আমাদের প্রধান কাজ তার ওপর একটু আলোকপাত করতে চাইÑ
রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক ও অসাম্প্রদায়িক রাজনীতির মূল কেন্দ্রবিন্দু। মুক্তিযুদ্ধে নেতৃত্বদানকারী এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া মহান রাজনৈতিক প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে ৩২ বছর যাবৎ দায়িত্ব পালন করছেন।

গণতন্ত্রের মানসকন্যা, রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার ৩২ বছরের নেতৃত্ব আমাদের জাতীয় ইতিহাসের এক গৌরবোজ্জ্বল অধ্যায়। বাংলাদেশের মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যার মধ্য দিয়ে জনগণের মৌলিক অধিকার হরণ করে বাংলাদেশকে স্বৈরতন্ত্রের ধারায় নিয়ে যাওয়া হয়েছিল।

জননেত্রী শেখ হাসিনা এক মরণপণ লড়াইয়ের মাধ্যমে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করেছেন, ভোটাধিকারসহ জনগণের মৌলিক অধিকার প্রতিষ্ঠা করেছেন এবং আশা-আকাক্সক্ষা ফিরিয়ে এনেছেন। তাঁর দূরদৃষ্টিসম্পন্ন, বিচক্ষণ ও সাহসী নেতৃত্বেই বাংলাদেশ ফিরে এসেছে গণতন্ত্র ও উন্নয়নের রাজনীতির ধারায়।

রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার ৩২ বছরের রাজনৈতিক জীবনের সাফল্য ও অর্জন জাতিকে গৌরবান্বিত করেছে। প্রধানমন্ত্রী হিসেবে তাঁর রাষ্ট্রনায়কোচিত নেতৃত্বে বাংলাদেশ বিশ্বের বুকে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে এবং মর্যাদার আসনে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। বাংলাদেশ এখন উন্নয়ন ও অগ্রগতির এক মডেল।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সভাপতি রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার নেতৃত্বেও সামগ্রিক সাফল্য এবং তাঁর দর্শন তাঁকে আজ একটি মহৎ প্রতিষ্ঠানে পরিণত করেছে। তিনি আজ বিশ্বসভায়ও নেতৃত্ব দিচ্ছেন। তাঁর বিশ্বশান্তির মডেল জাতিসংঘে সর্বসম্মতভাবে গৃহীত হয়েছে। বিশ্বশান্তির সবচেয়ে বড় শিক্ষা হলো জনগণের ক্ষমতায়ন। আর জনগণের ক্ষমতায়নের জন্য প্রয়োজন জনগণের নেতৃত্ব। শেখ হাসিনার শান্তি তত্ত্বের অন্যতম বৈশিষ্ট্য সেখানে বলা হচ্ছে, ‘নেতৃত্বকে হতে হবে পরিবর্তন সৃষ্টিকারী শক্তি, সে নেতৃত্ব সরকারে থাকুক বা সরকারের বাইরে থাকুক।’ রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা হলেন বিশ্ব জনগণের ক্ষমতায়নের জন্য উন্নত এবং উন্নয়নশীল দেশের সেতুবন্ধন যা বিশ্বশান্তির গোপন কথা।

‘শেখ হাসিনার দর্শন’ শীর্ষক গ্রন্থটি একটি অনবদ্য প্রকাশনা। রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার দর্শনের ওপর ভিত্তি করে প্রকাশিত বিভিন্ন গ্রন্থ থেকে দর্শনের মূল্যবান উপাদানসমূহ এই গ্রন্থে উদ্ধৃত করা হয়েছে। গ্রন্থে রয়েছে রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার বিশেষ বিশেষ মুহূর্তে ক্যামেরাবন্দি করা দেড় শতাধিক দুর্লভ ছবি। জাতীয় বরেণ্য ব্যক্তিবর্গের মূল্যবান লেখা প্রকাশনাটিকে সমৃদ্ধ করেছে। দেশে ও বিদেশে শেখ হাসিনার দর্শনকে প্রচার করার জন্য প্রকাশনাটি বাংলা ও ইংরেজি ভাষায় সংকলিত হয়েছে। 

বঙ্গবন্ধুর কনিষ্ঠ কন্যা শেখ রেহানা, প্রবাসী কলামিস্ট সাংবাদিক আবদুল গাফ্ফার চৌধুরী, প্রয়াত জাতীয় অধ্যাপক কবীর চৌধুরী, সব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হক, সাংবাদিক বেবী মওদুদ এমপি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, কবি মহাদেব সাহা, অর্থনীতিবিদ কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ, ব্যাংকার খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ ও কবি মুহাম্মদ সামাদের লেখা বইটিতে সংকলিত হয়েছে। তাঁদের প্রতি রইল কৃতজ্ঞতা। এ ছাড়া স্বল্প সময়ের মধ্যে বইটি প্রকাশে যারা সহযোগিতা করেছেন, তাঁদের জানাই আন্তরিক অভিনন্দন।

দ্রুততম সময়ের মধ্যে বইটি প্রকাশ করতে গিয়ে অনেক ভুল-ত্র“টি হতে পারে, সে জন্য পাঠকের ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টি প্রত্যাশা করছি। লেখা ও তথ্য সংগ্রহে ভুল থাকলে কোনো পাঠক যদি তা সংশোধন বা সংযোজন করার জন্য পাঠান, তাতে আমাদের প্রকাশনাটি আরও সমৃদ্ধ হবে। দ্বিতীয় সংস্করণে বইটি ত্র“টিমুক্ত হবে-এমন প্রতিশ্র“তি রইল।

রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার তথ্যকণিকা

পরিচিতি
ভাষণ
বার্তা

চেয়ারম্যান ডেস্ক

পরিচিতি
ভাষণ
বার্তা

সাধারণ সম্পাদক ডেস্ক

পরিচিতি
ভাষণ
বার্তা

যুবলীগ প্রকাশনা